জান্নাত

পরকালে সবার দুনিয়াবি কর্মকান্ডের হিসাব নেয়া হচ্ছে। সৃষ্টিকর্তা সবাইকে ডেকে ডেকে প্রশ্ন করছে, উত্তর বুঝে পাশ ফেইল নির্ধারণ করে জাহান্নাম আর জান্নাতে পাঠিয়ে দিচ্ছেন। তো হালিমা বেগমের ডাক পড়লো।
স্রষ্টাঃ তোমার দুনিয়ার জীবন তুমি কিভাবে কাটাইছো?
হালিমা বেগমঃ আমি শতভাগ ধর্মের বিধান মেনে চলেছি
স্রষ্টাঃ বেশ তোমার অর্ধেক জাহান্নাম মাফ
হালিমা বেগমঃ আমি কোন ধর্ম মেনে চলেছি সেটা জানতে চাইবেন না?
স্রষ্টাঃ সবই এক। যেটাই মানো অর্ধেক জাহান্নাম মাফ। দুনিয়ার কোন অংশে জীবন কাটিয়েছো?
হালিমা বেগমঃ আমি বাংলাদেশে বসবাস করেছি
স্রষ্টাঃ কংগ্রেচুলেশন হালিমা তুমি জান্নাত বিজয়ী হয়েছো। যাও জান্নাতে যাও
হালিমাঃ আর কোন প্রশ্ন করবেন না মহামান্য
স্রষ্টাঃ দুইটা প্রশ্নের উত্তরেই বুঝে গেছি তুমি শতভাগ জাহান্নাম দুনিয়াতেই কাটিয়ে এসেছো। আর তোমাকে জাহান্নাম দিয়ে বিব্রত করতে চাইনা। তোমার জান্নাত নসিব করার উপলক্ষে আজকে রাতে জান্নাতে পার্টি হবে। সেখানে তোমাকে বিনোদিত করবে রবীন্দ্রনাথের কবিতা, বেটোফেনের সোনাটা সিম্ফনি, আর তোমার সাথে নাচে অংশ নেবে সানি লিয়নি, কিম কার্দশিয়ান আর সোফিয়া লরেন…
হালিমাঃ এরা না জাহান্নামি…
স্রষ্টাঃ আমি নিজে একজন শিল্পী, একজন শিল্পী কি আরেকজন শিল্পীকে জাহান্নামে পাঠাতে পারে বলো। যাইহোক আমার সময় নষ্ট না করে জান্নাতে চলে যাও। বাকি ইন্টারভিউগুলো শেষ করি। এখানে বেশি সময় নিয়ে তোমার পার্টিতে তোমার সাথে একগ্নাস ওয়াইন মিস করতে চাইনা….

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *